একটি বুলেট প্রধানমন্ত্রীর পেছনে ছুটছে শেখ হাসিনার জন্য হাতজোড় করে ভিক্ষা চাইলেন শামীম ওসমান

0
10

শীতলক্ষা রিপোর্ট : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য হাতজোড় করে ভিক্ষা চেয়ে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, শেখ হাসিনা এখন আওয়ামী লীগের না, শেখ হাসিনা এখন বাংলাদেশের শুধু আওয়ামী লীগের প্রধানমন্ত্রী না। উনি একটা স্বপ্ন। ৭৫ এর আগে এই স্বপ্নটা ছিল বঙ্গবন্ধু। যাকে হত্যা করে আমাদের ৫০ বছর পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। একটা বুলেট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পিছে পিছে ছুটছে। পাহারা দিচ্ছেন আল্লাহ রাব্বুল আলামীন এবং আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সহ এই দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এই বুলেটটা যদি তাকে স্পর্শ করে তাহলে মনে রাখবেন বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে বড় ব্যর্থ স্বার্থে পরিণত হবে। আমার বিরোধীতা করেন কোনো সমস্যা নাই, আমাদের ফেলে দেন ছুড়ে কোনো সমস্যা নাই। তবে মন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করেন। যিনি সুন্দর বাংলাদেশ দেয়ার জন্য মা বাবা হারিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। উনাকে হায়াৎ দান করেন।
১ নভেম্বর শুক্রবার বিকেলে পূর্বাচল কাঞ্চন-কুড়িল বিশ্বরোড সড়কের পাশে দেশের সর্ববৃহৎ খাদ্য জোন, রংধনু গ্রুপের ‘মেহেদী ফুড কোর্ট’ উদ্বোধন উপলক্ষে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি এসব কথা বলেন। দেশ-বিদেশের মানসম্মত ২১৬টি খাবারের দোকানের সমন্বয়ে গড়ে ওঠা মেহেদী ফুড কোর্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ফুড কোর্টের উদ্বোধন করেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
বুদ্ধিজীবীদের উদ্দেশ্য করে শামীম ওসমান বলেন, ঢেকি স্বর্গে গেলেও ধান ভানে। আমি পলিটিসিয়ান। আমি রাজনীতি করি। আমার বক্তব্যটা সেজন্য সবসময় রাজনৈতিক কেন্দ্রিকই হয়ে থাকে। আপনাদের কাছে প্রশ্ন রাখতে চাই। আমাদের সমালোচনা করা লোকের অভাব নাই। বাংলাদেশে দুই ধরনের বুদ্ধিজীবি লোক আছেন। একজন হচ্ছে একজন হচ্ছেন যারা নিজেদেরকে বুদ্ধিজীবী মনে করেন, আরেকজন হচ্ছে মানুষ যাদেরকে বুদ্ধিজীবী মনে করেন। আমরা এত ছোট মনের মানুষ হয়ে গেছি, জাতির জনকের কন্যা আমাদের লোকদেরকে দিয়েই অ্যাকশন শুরু করেছেন। কিন্তু আপনারাতো তাকে ধন্যবাদ জানান নাই। যারা বিদেশী এম্বেসীতে যাতায়াত করেন, বড় বড় কথা বলেন, তারা তো শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান নাই। আপনাকে দেখেন উনি শেষ করেন কোথায়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রশংসা করে তিনি বলেন, দুনিয়াতে কিছু ধরনের মানুষ আছে, কেউ আছে শুধু মানুষ, কেউ আছে ভাল মানুষ, আর কেউ আছে সর্ব সেক্টরে প্রকৃত ভাল মানুষ। আমি আল্লাহকে স্বাক্ষী রেখে বলছি, প্রকৃত ভাল মানুষ সেই হতে পারে, যে তার সমস্ত পরিবার নিয়ে ভাল থাকে। পরিবারের কর্ণধার কিভাবে ভালো হয়, কিভাবে তার সহধর্মীনি ভাল হয়, কিভাবে তার সন্তানরা ভাল হন এবং রাজনৈতিক অঙ্গনে থেকে এই ভাল থাকাটা খুবই কঠিন। কারণ আমাদের দেশটা তোষামোধী গ্রুপ অনেক স্ট্রং। সেই স্ট্রং তোষামোদি গ্রুপের মধ্য থেকে রাজনীতিতে আছি এবং তিন পুরুষ ধরে রাজনীতিতে থাকা লোক খুব কমই আছেন। আমরা তিন ভাই এমপি হয়েছি। এই বিষয়টা খুব ভালভাবেই বুঝি। আর বুঝি বিধায় সেই প্রকৃত ভাল মানুষ যাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিয়েছেন, সেই পথ হচ্ছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পথ। আমি বিশ্বাস করি, মানুষ শান্তিতে থাকতে চাই। এই জায়গাটার দায়িত্বটা বিশাল অংশে উনি ভূমিকা রেখেছেন। আমি বলবো এ যাবতকাল পর্যন্ত উনি সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। আগামীতেও তিনি যেন দায়িত্বে থাকেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here