সাফল্য নিয়ে শহরবাসীর মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ওয়াসা : চ্যালেঞ্জ নিলেন মেয়র আইভী

0
8

শীতলক্ষা রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জে ওয়াসার দায়িত্ব নিলো নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন। এখন থেকে নগরবাসীকে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করার দায়িত্ব তাদের। মেয়র আইভী বলেছেন, আগামী দুই বছরের মধ্যে তিনি নগরবাসীকে সুপেয় পানি সরবরাহ করতে সক্ষম হবেন। তবে মেয়র আইভী যাই বলেন না কেনো, তিনি যে একটি বড় চ্যালেঞ্জ নিলেন এতে কারোই কোনো সন্দেহ নেই। তাই মেয়র এই কাজে কতোটা সফল হবেন এ নিয়ে শহরবাসীর মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া রয়েছে। নারায়ণগঞ্জের সাধারন মানুষের মাঝে যারা মেয়র আইভীর শুভাকাংখী তারা মনে করেন, আইভী এই কাজে সফল হবেন। কারণ তিনি চ্যালেঞ্জ নিতে জানেন এবং সফল হন সেই প্রমান রয়েছে নগরবাসীর সামনে। এই শহরে এমন অনেক কিছুই তিনি করে দেখিয়েছেন যা অতীতে করা অসম্ভব মনে করা হতো। তাই ওয়াসাতো আরো সহজ বিষয়। কারণ বিশে^র দেশে দেশে যেভাবে পানি সরবরাহ করা হয় তিনিতো সেভাবেই করবেন।
তবে যারা আইভী বিরোধী তারা মনে করেন, ভুল করলেন আইভী। কারণ এই শহরে ওয়াসা সবচেয়ে ব্যার্থ একটি প্রতিষ্ঠান। বছরের পর বছর তীব্রভাবে সমালোচিত হয়ে আসছে ওয়াসা। দূর্গন্ধযুক্ত পানি সরবরাহ করে তারা কঠোর সমালোচনার মুখে পরেছেন। তাই ওয়াসা সিটি করপোরেশনের আওতায় নেয়ার বিরোধীতা করেছেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর খোরশেদও। তিনি সিটি করপোরেশনের বৈঠকেই বলেছেন, ওয়াসা সিটি করপোরেশনের আওতায় নেয়ার কোনো দরকার নেই। নিলে মেয়র ও কাউন্সিলরদের ঘরের চাল থাকবে না। পাবলিক টিন খুলে নিয়ে যাবে। কিন্তু তার এই বক্তব্যের বিরোধীতা করেছিলেন সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী এহতাশেমুল হক। তিনি বলেছিলেন, সিটি করপোরশেন ওয়াসাকে চ্যালেঞ্জ হিসাবে নিচ্ছে। মেয়র শহরবাসীকে সুপেয় বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করতে চান। আর এই কাজে সফল হওয়ার জন্য তিনি যথেষ্ঠ স্ট্যাডি করেছেন এবং সফল হবেন ইনশাল্লাহ।
তাই এবার সত্যি সত্যিই ওয়াসা সিটি করপোরেশনের আওতায় যাওয়ায় শেষ পর্যন্ত কি ঘটে সেটাই এখন দেখার বিষয়। তবে মেয়রের এই চ্যালেঞ্জ শহরবাসীর জন্য যেনো মঙ্গলজনক হয় সেই আশাই করছে নগরবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here