নগর ভবনের সামনেই ময়লার স্তুূপ

0
9

শীতলক্ষা রিপোর্ট : শুধুমাত্র শহরের রাস্তা, বাজার ও নির্দিষ্ট কিছু জায়গা পরিষ্কারের জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনে বর্তমানে ৯১২ জন পরিচ্ছন্ন কর্মী রয়েছে। এছাড়া রয়েছে অত্যাধুনিক বুলডোজার ও ডাম্পট্রাক। অথচ এত কিছু থাকার পরেও যাদের হাতে শহর পরিষ্কারের দায়িত্ব স্বয়ং নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ভবনের সামনের সড়কেই রয়েছে ময়লার স্তুূপ।
২৯ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় সরেজমিনে দেখা যায় এমন চিত্র। নগর ভবন থেকে বেরিয়ে সড়কের বিপরীত পাশে এসে ফায়ার স্টেশনের দিকে একটু সামনে এগোতেই দেখা যায় গৃহস্থলির বর্জ্য থেকে শুরু করে সব ধরনের ময়লা-আবর্জনার বড় একটি স্তুূপ। এসব ময়লা-আবর্জনা থেকে ছড়াচ্ছে ভয়ানক দুর্গন্ধ। তবে ময়লাকে ঘিরে ট্রাক ও বাস পার্কিং করে রাখায় বাইরে থেকে দেখা যায় না।
নগর পরিচ্ছন্ন রাখার দায়িত্ব যাদের। তাদের ভবনের সামনেই ময়লার স্তুূপ নিয়ে অনেকে হাসি ঠাট্টা করেলও ময়লা অপসারণে হেয়ালি করায় নাসিকের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকে।
নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক সেখানকার এক দোকানদার বলেন, দিনভর এইভাবেই ময়লা রাস্তার উপর পরে থাকে। কখনো কখনো দুই-তিন দিন পর পর পরিষ্কার করা হয়। ফুটপাত দিয়ে কেউ হাটতে পারে না। ভয়াবহ দুর্গন্ধ চারদিকে ছড়ায় এই ময়লার স্তুূপ থেকে। দোকানে ঠিকমত বসে থাকতে পারি না। এতকিছুর পরেও এখান থেকে ময়লা সরায় না।
পথচারী রাকিব বলেন, সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্ব হচ্ছে শহর পরিচ্ছন্ন রাখা। অথচ তাঁরা নিজেদের আঙ্গিনাই পরিষ্কার রাখতে পারে না। শুধু এখানেই না শহরের আরো কয়েকটা জায়গা আছে যেখানে এইরকম ময়লার স্তুূপ হয়ে থাকে। কয়েকদিন পর পর যায় অর্ধেক ময়লা নিয়ে আসে আর অর্ধেক রেখে দেয়। একেবারে পরিষ্কার করতে দেখলাম না কখনই। সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মীরা ঠিক মত কাজ করছে না। সিটি কর্পোরেশনের কাছে অনুরোধ করব নিজেদের সুনামের স্বার্থে হলেও পরিচ্ছন্ন কর্মীদের কজে যাতে তদারকি করে। নতুবা শহর পরিচ্ছন্ন রাখা সম্ভব হবে না।
এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন হিরণের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here